একটি ব্যবসা চালানোতে সহায়ক ৫টি বৌদ্ধ নীতি

বৌদ্ধ ধর্মকে প্রায়শই ধ্যানের সঙ্গে যুক্ত করা হয়। কিন্তু এটা চিন্তা-ভাবনা করার জন্যএকাধিক অন্তর্দৃষ্টি প্রদান করে যা যে কোনো ক্ষেত্রে প্রয়োগ করা যেতে পারে। আসুন কয়েকটি বৌদ্ধ নীতি দেখা যাক যা আমাদের কোনও প্রকল্প বা ব্যবসা চালনা করতে সাহায্য করতে পারে।

লক্ষ্য নির্ধারণ করুন

বৌদ্ধ ধর্ম প্রবলভাবে জোর দেয় যে, বৌদ্ধ অনুশীলনের অভ্যাসে যুক্ত হওয়ার পূর্বে, সর্বপ্রথমে লক্ষ্য আর দিকনির্দেশ বিষয়ে স্পষ্ট ধারণা থাকা উচিৎ। অশান্ত ভাবনাগুলি থেকে নিজেকে পুরোপুরি মুক্ত করা আর নিজের মন এবং হৃদয়ের সাম্ভাব্য উপলব্ধি করাটাই হল এর লক্ষ্য। এই অন্তিম অবস্থাকেই বলা হয় “বোধি”।

একইরকমভাবে, যখন আমরা কোনও প্রকল্প অথবা ব্যবসা শুরু করি, লক্ষ্য নির্ধারণ করাটা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ হয়। এটা কি লাভ? এটা কি গ্রাহকদের জন্য কি নির্দিষ্ট মান তৈরী করছে, অথবা তাদের কোনও কঠিন সমস্যার সমাধান করছে, তারা যার মুখোমুখি হচ্ছে? যত সঠিকভাবে লক্ষ্যটি নির্ধারণ করা হবে, তত সহজ হবে সেই লক্ষ্য পর্যন্ত পৌঁছনোর পথ খুঁজে বের করা, এবং লক্ষ্য পর্যন্ত পৌঁছনোর সম্ভাবনা ততোধিক তৈরী হবে।

হেতু এবং প্রত্যয়ের নীতির অনুসরণ করুন

যখনই লক্ষ্য নির্ধারণ হয়ে যাবে, আমাদের সেই কারণগুলি খুঁজে বের করতে হবে যেগুলি আমাদের এই লক্ষ্যে পৌঁছতে সাহায্য করবে। “বোধি”-এর জন্য, কারণগুলি আমাদের ধ্বংসাত্মক ব্যবহারকে নিবৃত্ত করবে এবং আমাদের মনের ভালো গুণগুলিকে বিকশিত করবে, আর গঠনমূলক, বাস্তববাদী পৃথিবীর সঙ্গে, এবং তার সাথে কী করে মোকাবিলা করব তার রাস্তা সাথে আমাদের পরিচয় করাবে।

একটি ব্যবসায়িক প্রকল্পের ক্ষেত্রে, আমাদের কারণগুলি খুঁজে বের করতে যুক্তি প্রয়োগ করা আবশ্যক যা আমাদের লক্ষ্যে পৌঁছতে সাহায্য করবে। এই প্রক্রিয়াটি বিপরীত প্রকৌশলের মতো। আমরা কার্যগুলির যৌক্তিক ক্রম সন্ধান করা শুরু করি যেগুলি আমাদের নির্ধারিত লক্ষ্যে পৌঁছে দেবে। এই প্রক্রিয়াটি লক্ষ্য প্রাপ্তির জন্য অত্যাবশ্যক পদক্ষেপগুলিকে নির্ধারণ করে এবং প্রকল্পের মানচিত্রের জন্য ভালো আধার নির্মাণ করে।

করুণা : গ্রাহক-সমস্যার সমাধান করুন

করুণা হল বৌদ্ধ ধর্মের সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ নীতিগুলির মধ্যে একটি। বুদ্ধের উপদেশ অনুযায়ী:

করুণা হল অন্যরা দুঃখ থেকে মুক্ত হওয়ার ইচ্ছা।

একটি ব্যবসার সঙ্গে এর কী সম্পর্ক? ব্যবসা গ্রাহকের সমস্যার সমাধান প্রদান করে। যদি ব্যবসা দ্বারা প্রদত্ত সমাধান অন্য প্রচলিত সমাধানগুলির থেকে ভালো হয়, তাহলে এটা প্রতিযোগিতামূলক দৌড় জিতে যায়। অতএব, আমাদের সাম্ভাব্য গ্রাহকরা যে সমস্যার মুখোমুখি হতে পারেন তা বোঝা এবং তাদের সমস্যার প্রতি সহানুভূতিশীল মনোভাব রাখা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। আমাদের কিছু বাস্তবিক সমস্যা শনাক্ত করতে হবে এবং মনে রাখতে হবে যেগুলো আমাদের লক্ষ্য গ্রাহকেরা তাদের জীবনে দেখেন।এবং সেই বোধগম্যের উপর ভিত্তি করে এই সমস্যার সমাধানের চেষ্টা সর্বোত্তম উপায় দ্বারা করতে হবে। ব্যবসার ক্ষেত্রে, করুণা হল গ্রাহক-প্রথম অথবা ব্যবহারকারী-কেন্দ্রিক পদ্ধতির আধার।

অনিত্যতা: পরিবর্তনশীল বিশ্বকে অনুকুল তৈরী করুন

বৌদ্ধ বিশ্লেষণ আমাদের নিয়ে আসে আরও একটি মূল্যবান অন্তর্দৃষ্টি বাস্তবের দিকেঃ সবকিছু প্রতিনিয়ত পরিবর্তন হচ্ছে- আমরা স্বয়ং, পরিবেশ এবং আমাদের চারিপাশের সকল মানুষ। কোনও ধারণার সঙ্গে জুড়ে যাওয়া খুব সহজ, যা সুস্পষ্ট এবং দৃঢ় মনে হয়; কিন্তু দ্রুত পরিবর্তনশীল বাস্তবতায়, এটা প্রায়শই সংকীর্ণ মনের বিচারধারা, অনমনীয়তা এবং জেদীতার কারণ হয়ে দাড়ায়।

নেটফ্লিক্সকে একটি উদাহরণ হিসাবে নেওয়া যাক। তারা বুঝতে পেরেছিল যে, ইন্টারনেট মিডিয়া উপভোগের নমুনাটাকে বদলে দিয়েছিল। পুরানো স্কুল চিন্তা-ভাবনার মধ্যে সামগ্রী উপভোগ করার একমাত্র সমাধান ছিল: ডিভিডি ভাড়া নেওয়া। কিন্তু নেটফ্লিক্স সচেতন হয়েছিল যে এর জন্য একটি সহজ উপায় আছে- ভিডিও স্ট্রিমিং। পুরো মিডিয়া উপভোগ শিল্প বুঝতে পারেনি বাজার এবং ব্যবহারকারীর অভ্যাসের পরিবর্তনশীলতাকে। কিন্তু নেটফ্লিক্স এটা প্রথম বুঝেছিল, এবং সমস্ত শিল্পকে চিরতরে পরিবর্তন করে দিয়েছে।

নৈতিকতা: সম্মান করুন নিজেকে, নিজের দলকে এবং উপভোক্তাকে

বৌদ্ধ নৈতিকতা অহিংসার সিদ্ধান্তের উপর আধারিত। আমরা অনুভব করি যে, প্রত্যেকে সুখী হতে চাই, দুঃখী হতে চাই না। যদি আমরা এই বোঝাকে নিজেদের কার্যের আধার করি এবং অন্য মানুষদের অনিষ্ট করা থেকে বিরত থাকার চেষ্টা করি, তাহলে আমরা তাদের সম্মান এবং বিশ্বাস প্রাপ্ত করব।

যদি আমরা নিজেদের সহকর্মীদের সম্মান করি, তাহলে এই দলের মধ্যে বিশ্বাস এবং পরস্পরের মধ্যে বোঝাপড়া নিয়ে আসবে। আমাদের মানুষের পিছনে অথবা তাদের সামনে অপ্রিয় কিছু বলা থেকে বাঁচার প্রচেষ্টা করতে হবে, এবং স্বচ্ছ থাকার চেষ্টা করি। আরও, আমরা গ্রাহকদের আমরা যত সম্মান করি, তত বেশি বিশ্বাস এবং নিষ্ঠা আমরা ফেরত পাই। জপ্পোস-এর মতো মহান কম্পানীগুলি গ্রাহকের চাহিদা এবং কর্মচারীদের মধ্যে সমভাব এবং স্বচ্ছতার উপর তাদের ব্যবসার আদর্শ স্থির করেছে।

সারাংশ

আমরা আমাদের ব্যবসাকে মজবুত বানানোর জন্য ৫টি বৌদ্ধ নীতি ব্যবহার করতে পারি। এই নীতিগুলি হল:

  • লক্ষ্য নির্ধারণ করুন।
  • হেতু-প্রত্যয়ের উপর নির্ভর করুণ।
  • গ্রাহকের জন্য সহানুভূতি এবং করুণা বিকশিত করুন।
  • পরিবর্তনশীলতাকে মনে রাখুন এবং নমনীয় ও উদ্ভাবনী হন।
  • নৈতিক নীতিগুলি অনুসরণ করুন আর সহকর্মী এবং গ্রাহকদের সম্মান করুন।
Top